সিএসএস টিউটোরিয়াল | ভূমিকা


এইচটিএমল ডকুমেন্টের যেকোন এলিমেন্টকে স্টাইলিং বা একটা রুপ দিতে সিএসএস ব্যবহার হয়। একটা প্যারাগ্রাফ বা হেডিং বা যেকোন এলিমেন্ট কে ধরুন রং করতে চান, ফন্ট বড় ছোট করতে হবে, অবস্থান এক দিক থেকে অন্যদিকে নিতে হবে, ব্যাকগ্রাউন্ড রং বদলাতে হবে এরুপ শত ধরনের স্টাইল পরিবর্তন সিএসএস দিয়ে করা হয়। বিশেষ করে লেআউট তৈরীর জন্য সিএসএস সবচেয়ে বেশি জরুরি। বর্তমানে সিএসএস ৩ ব্যবহার হচ্ছে এবং এর ব্যবহার দিন দিন বেড়েই চলছে।

CSS - Cascading Style Sheets

এইচটিএমএল এলিমেন্টের বিপরীতে সিএসএস রুল লেখা হয়। এখানে সিএসএস এর মৌলিক বিষয়াদি থেকে শুরু করে সিএসএস ৩ এরও প্রয়োজনীয়গুলি নিয়ে টিউটোরিয়াল দেয়া হবে। আর একটি কথা না বললেই নয় সিএসএস শেখার আগে অবশ্যই এইচটিএমএল সম্বন্ধে ভাল জানতে হবে।

**একটা এইচটিএমএল পেজে <head> ট্যাগের ভিতর <style> ট্যাগ দিয়ে সিএসএস কোড যোগ করে পেজ স্টাইলিং করা যায়।এটা হচ্ছে ইন্টারনাল সিএসএস  আর যদি সিএসএস কোড বেশি হয়ে যায় তখন সিএসএস কোড আলাদা ফাইলে লেখা হয় এবং <head> ট্যাগের ভিতর <link> ট্যাগ দিয়ে সিএসএস ফাইলটি ঢুকিয়ে দেয়া হয়। এই পদ্ধতি হচ্ছে এক্সটার্নাল সিএসএস। ওয়েবকোচবিডি সাইটের অধিকাংশ টিউটোরিয়ালের উদাহরনগুলিতে ইন্টারনাল সিএসএস ব্যবহার করে দেখানো হয়েছে তবে বেশিরভাগ সময়ে এক্সটার্নাল সিএসএস লেখা ভাল।